মঙ্গলবার, ফেব্রুয়ারি ৭, ২০২৩

কলারোয়া নিউজ

প্রধান ম্যেনু

সাতক্ষীরার সর্বাধুনিক অনলাইন পত্রিকা

গুম করা হচ্ছে রোহিঙ্গাদের লাশ

লাইন করে যুবতীদের গণধর্ষণ

মিয়ানমানের বুরাইঙ্গা পাড়া থেকে দীর্ঘ পথ পাড়ি দিয়ে লম্বা বিল হয়ে বাংলাদেশে অনুপ্রবেশ করেন ইয়াসমিন সুলতানা নামে এক যুবতী। পাঁচ দিন হেঁটে গতকাল দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে তিনি লম্বা বিলে আসেন।
তিনি অকপটেই জানালেন, সেখানকার করুণ কাহিনী। বললেন, তার গ্রামে বৃদ্ধা ও তরুণীদের পৃথক লাইনে দাঁড় করানো হয়েছিল। সেখানে তরুণী যুবতীদের আলাদা একটি বাড়িতে নিয়ে বার্মিজ আর্মিরা গণধর্ষণ করেছে। তিনি নিজেও ধর্ষণের শিকার হয়েছেন। তবে শুধু ধর্ষণই নয়, তার সামনেই তিন তরুণীকে গুলি করে হত্যাও করা হয়। নিজেকে অসুস্থ বলে হাতে ধরে পায়ে পড়ে কোনোমতে বাংলাদেশে পালিয়ে আসতে সক্ষম হয়েছেন ইয়াসমিন। শারীরিকভাবে দুর্বল থাকা ইয়াসমিনকে লম্বা বিলের একটি খালের কিনারে বসে থাকতে দেখা যায়। তিনি জানান, তার স্বামীকে গুলি করে হত্যা করা হয়েছে। এক স্বজনের জন্য অপেক্ষা করছেন তিনি। শুধু ইয়াসমিনই নন, তার মতো অসংখ্য যুবতী তরুণী মিয়ানমারে বার্মিজ আর্মি ও উগ্রপন্থি বৌদ্ধদের দ্বারা পাশবিক নির্যাতনের শিকার হচ্ছেন। শুধু নির্যাতনই নয়, অনেক তরুণীকে হত্যাও করা হয়েছে। চোখের সামনে বয়োবৃদ্ধ ও বৃদ্ধাদের ওপর নানাভাবে নির্যাতন চালিয়ে হত্যা করা হচ্ছে। রোহিঙ্গা যুবকদের হত্যার পাশাপাশি পুড়িয়ে ফেলা হচ্ছে।
হোয়াইক্যং লম্বাবিল সীমান্ত দিয়ে অনুপ্রবেশ করে শিকদারপাড়ার বিধবা জয়নাব আক্তার (২২)। তিনি জানালেন, তার স্বামী ও ভাইকে সেনাবাহিনীর সদস্যরা সাত দিন আগেই পুড়িয়ে হত্যা করেছে। তাকেও দেশ ছাড়তে বাধ্য করেছে। চার সন্তান নিয়ে ছয় দিনে তিনি বাংলাদেশে এসেছেন। কান্নাজড়িত কণ্ঠে তিনি বলেন, এখন এই ছেলে সন্তান নিয়ে কোথায় যাব, কী করব? সরেজমিন লম্বাবিল ও আঞ্জুমানপাড়া সীমান্ত ঘুরে দেখা গেছে, রাখাইনের আকাশে হেলিকপ্টার চক্কর দেওয়ার পর ওপারের পোয়াখালী, নাইচাডং, শিকদারপাড়া, নাইছাপ্রু, হাতিপাড়া এলাকায় বাড়ি ঘরে আগুন দেওয়া হয়েছে। আগুনের লেলিহান শিখায় ধোঁয়ায় আচ্ছন্ন হয়ে গেছে গোটা এলাকা। বাংলাদেশে আসা একাধিক রোহিঙ্গা নারী ও পুরুষ জানান, এ পর্যন্ত সহিংসতায় অন্তত ৫ হাজার যুবতী নারী ধর্ষণের শিকার হয়েছে। তাদের অনেককেই নির্মমভাবে মেরে ফেলা হয়েছে। এ ছাড়া ১০ হাজার যুবককে গুলি করে ও আগুনে পুড়িয়ে হত্যা করা হয়েছে। তবে জাতিসংঘের রিপোর্ট অনুযায়ী সহস াধিক যুবককে হত্যা করা হয়েছে রাখাইন রাজ্যে। দলে দলে ছুটে আসা রোহিঙ্গা নারী-পুরুষের সঙ্গে কথা বলে আরও জানা গেছে, ২৫ আগস্ট থেকে রাখাইন রাজ্যে নতুন করে শুরু হওয়া সহিংসতা তীব্র আকার ধারণ করেছে। গতকাল পর্যন্ত একই চিত্র লক্ষ্য করা যায়। মিয়ানমারের পোয়াখালী এলাকার হাবিবুল্লাহ (৫০) বলেন, তার ছেলে এরফানকে (৫) হত্যার উদ্দেশে পাহাড় থেকে নিচে নিক্ষেপ করে ভাগ্যক্রমে বেঁচে গেলেও তার কোমর ভেঙে গেছে। মিয়ানমারের ঢেঁকিবুনিয়া এলাকার জয়নাল আবেদীন (৩৩) বলেন, অতর্কিত অবস্থায় তাদের বাড়িঘর লক্ষ্য করে গুলি ছুড়লে স্ত্রী ছৈয়দা খাতুন (২৯), ছেলে হাসান (৭), মো. ইছা (৫), মেয়ে মাহিদাকে (২) সঙ্গে নিয়ে এদেশে চলে আসেন। জলপাইতলি সীমান্ত পয়েন্ট দিয়ে বাংলাদেশে আসা ঢেঁকিবুনিয়া এলাকার বাসিন্দা লোকমান হাকিম (৫০) ও তার ভাই মো. নোমান (৪৫) বলেন— স্ত্রী, পুত্র, জায়গা-জমি, গরু, ছাগল, হাঁস, মুরগি ফেলে জীবন বাঁচাতে চলে এসেছে বাংলাদেশে। এদের প্রত্যেকের অভিযোগ, মিয়ানমার সেনা ও বিজিপির সদস্যরা রাখাইনে যুবক-যুবতী চিহ্নিত করে হত্যায় মেতে উঠেছে। বয়োবৃদ্ধদের দেশ ছাড়তে বাধ্য করা হচ্ছে বলে তাদের অভিযোগ।

সন্তান জন্ম দিলেন হাসিনা বেগম : মিয়ানমারের টম বাজার এলাকা থেকে ছয় দিন হেঁটে গতকাল উখিয়ার আঞ্জুমানপাড়া বিলে আশ্রয় নেন হাসিনা বেগম নামে এক রোহিঙ্গা গর্ভবতী নারী। রবিবার দুপুর ১২টার দিকে খোলা আকাশের নিচে জন্ম দিলেন এক ছেলে সন্তান। এ সময় গুঁড়ি গুঁড়ি বৃষ্টি পড়ছিল। ছিল না কোনো তাঁবু। প্রসব বেদনায় যখন কাতরাচ্ছিলেন, তখন তার পাশে তেমন কেউ ছিল না। স্বামীর সহযোগিতায় ফুটফুটে এক বাচ্চার জন্ম দেন হাসিনা বেগম। তিনি জানালেন, সুস্থ আছেন। তবে ক্ষুধার্থ। এ নিয়ে তার পাঁচ সন্তান। দীর্ঘপথ পাড়ি দিয়ে এসেও সুস্থ বাচ্চা জন্ম দেওয়ায় চরম খুশিও তিনি। বাচ্চার নাম কী রাখবেন, জানতে চাইলে বাবা নাসির মোহাম্মদ বলেন, জিহাদ হোসেন। জিহাদ কেন নাম এমন প্রশ্নে তিনি বলেন, অনেক যুুদ্ধ করে স্ত্রী ও চার সন্তানকে নিয়ে বাংলাদেশে তিনি পালিয়ে আসতে সক্ষম হয়েছেন। তাই বাচ্চার নাম জিহাদ হোসেন রাখা হয়েছে।

গুম করা হচ্ছে রোহিঙ্গাদের লাশ
মিয়ানমার চলমান সেনা অভিযানে চার শতাধিক ‘সন্ত্রাসী’কে হত্যা করেছে বলে দাবি করেছে সেদেশের সরকার। তবে মিয়ানমারের গণতন্ত্রের জন্য গঠিত সর্বদলীয় কমিটির কো-চেয়ারম্যান ও লেবার পার্টির এমপি রুশনারা আলীর নেতৃত্বে ব্রিটেনের পার্লামেন্ট সদস্যদের লিখিত এক চিঠিতে নির্ভরযোগ্য রোহিঙ্গা সূত্রগুলোর বরাত দিয়ে বলা হয়েছে মৃতের সংখ্যা তিন হাজার ছাড়িয়ে যেতে পারে।

যদিও অনুপ্রবেশকারী রোহিঙ্গারা মৃতের সংখ্যা আরো বেশি হবে বলে দাবি করেছেন। তারা বলছে, মিয়ানমারের সৈন্যরা নৃশংসতার চিত্র মুছে ফেলছে। তারা রোহিঙ্গাদের গুলি করে হত্যার পর লাশ এক জায়গায় জড়ো করে আগুনে পুড়িয়ে ফেলছে। অনেক বাড়িতে গিয়ে সবাইকে ঘরের ভেতরে ঢুকিয়ে দরজা আটকে দিয়ে আগুন দিচ্ছে। ফলে সবাই ঘরের ভেতরে পুড়ে ছাই হয়ে যাচ্ছে।
এছাড়া অনেককে ক্যান্টনমেন্টের ভেতরে ধরে নিয়ে জ্যান্ত আগুন দিয়ে মারছে। অনেক গ্রামে বড় গর্ত করে গণহারে পুঁতে পেলা হচ্ছে। যারা বিজিপির হাতে খুন হচ্ছে তাদের লাশ নদীতে ভাসিয়ে দেয়া হচ্ছে। ইতিমধ্যে বাংলাদেশ সীমান্তে নদী ও স্থলভাগে অনেক লাশ উদ্ধারও হয়েছে।

সীমান্তে মাইন বিস্ফোরণে নিহত ৩
বান্দরবানের নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলার মিয়ানমার সীমান্ত সংলগ্ন রেজু, আমতলী ও তুমরু সীমান্তে মিয়ানমার সীমান্ত রক্ষীদের পুঁতে রাখা স্থলমাইন বিস্ফোরণে তিন রোহিঙ্গা নিহত ও আরো তিন জন আহত হয়েছে। শনিবার রাত ও রবিবার সকালে এই হতাহতের ঘটনা ঘটে। নিহতদের লাশ জিরো পয়েন্টের নো ম্যানস ল্যান্ডে পড়ে আছে। মিয়ানমারের সেনাবাহিনী বাংলাদেশ-মিয়ানমার নো ম্যানস ল্যান্ডের কয়েকশ গজের মধ্যে নতুন করে স্থল মাইন পুঁতেছে।

একই রকম সংবাদ সমূহ

‘ভোমরা স্থলবন্দরকে পূর্ণাঙ্গ বন্দর করা হবে’ : নৌ-পরিবহন প্রতিমন্ত্রী

সাতক্ষীরা ভোমরা স্থলবন্দর উন্নয়ন ও পরিচালনা গতিশীলতা আনয়নের নিমিত্ত গঠিতবিস্তারিত পড়ুন

টিকাদানের সাফল্যে ‘ভ্যাকসিন হিরো’ পেলেন প্রধানমন্ত্রী

টিকাদানের সাফল্যে ‘ভ্যাকসিন হিরো’ পেলেন প্রধানমন্ত্রী। বাংলাদেশে টিকাদান কর্মসূচি একটিবিস্তারিত পড়ুন

সর্বজনীন স্বাস্থ্য কর্মসূচির অগ্রগতি ত্বরান্বিত করার আহ্বান

জাতিসংঘের ৭৪তম সাধারণ পরিষদের অধিবেশনে যোগ দিতে নিউ ইয়র্কে এসেবিস্তারিত পড়ুন

  • রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসন প্রক্রিয়ায় যুক্ত হচ্ছে চীন
  • ইউপি নির্বাচন : চেয়ারম্যান-মেম্বারদের শিক্ষাগত যোগ্যতার বিষয়টি ‘গুজব’
  • বাংলাদেশের নর্দান ইউনিভার্সিটি ও কানাডার কর্টলার ইন্টারন্যাশন্যাল, রেসিন্ট ইন্টারন্যাশন্যালের মধ্যে সমঝোতা চুক্তি
  • চতুর্থ ড্রিমলাইনার ‘রাজহংস’ উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী
  • প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ৩৭টি পদক লাভ
  • ড. কালাম ‘এক্সিলেন্স এওয়ার্ড’ গ্রহণ করেই দেশবাসীকে উৎসর্গ করলেন প্রধানমন্ত্রী
  • তৃণমূল থেকে সংগঠনকে গড়ে তুলতে হবে: প্রধানমন্ত্রী
  • মোবাইল ছিনতায়কারীকে দৌড়ে ধরলেন ম্যাজিস্ট্রেট
  • কয়েক ঘণ্টার মধ্যে শোভন-রাব্বানির ভাগ্য নির্ধারণ
  • পরিকল্পিতভাবে উন্নয়ন পরিকল্পনা গ্রহণ করতে হবে : প্রধানমন্ত্রী
  • পুলিশের ব্যাংকের যাত্রা শুরু
  • বিএনপি অর্থ-সম্পদ অর্জনে বেশি ব্যস্ত ছিল: প্রধানমন্ত্রী