মঙ্গলবার, নভেম্বর ২৯, ২০২২

কলারোয়া নিউজ

প্রধান ম্যেনু

সাতক্ষীরার সর্বাধুনিক অনলাইন পত্রিকা

বাসা-বাড়িতে এলপি গ্যাসের ব্যবহার বাড়াতে চায় সরকার

২০১৯ সালের মধ্যে ৭০ শতাংশ বাসাবাড়িতে এলপি গ্যাসের ব্যবহার নিশ্চিত করতে চায় সরকার। এমন পরিকল্পনা বাস্তবায়নে দেশীয় প্রতিষ্ঠানগুলো প্রস্তুতি নিচ্ছে নতুন করে বিনিয়োগের। পাইপলাইনে আছেন বিদেশি উদ্যোক্তারাও। তবে এই খাতের আন্তর্জাতিক সংগঠন ওয়ার্ল্ড এলপিজি অ্যাসোসিয়েশনের মতে, বাজার তৈরির পাশাপাশি সরকারকে নজর দিতে হবে সিলিন্ডারের নিরাপত্তার দিকেও।

চলতি মাসেই দেশের ইতিহাসে প্রথমবারের মতো সরকারের তরফ থেকে দুই দফা দাম বাড়ানোর ঘোষণা দেয়া হয়। এমন পরিস্থিতিতে গৃহস্থালীর কাজে বিকল্প জ্বালানি হিসেবে বাড়ছে এলপি গ্যাসের চাহিদা। সরকারেরও লক্ষ্য আগামী দুই বছরের মধ্যে ৭০ শতাংশ গৃহস্থালী কাজে এলপি গ্যাসের ব্যবহার নিশ্চিত করা।

বর্তমান বাজার বলছে, গেলো বছর সারাদেশে ঘরের কাজে ৩লাখ মেট্রিক টন এলপি গ্যাসের ব্যবহার হয়েছে। আগামী বছর এ চাহিদা দাড়াবে ৫ লাখ মেট্রিক টনে। আর ২০২০ সাল নাগাদ প্রয়োজন হবে ১০ লাখ মেট্রিক টনের। দেশে বর্তমানে অনুমোদন পাওয়া ৪৮টির মধ্যে পুরোদমে উৎপাদন আর বিপননে আছে মাত্র ৭টি প্রতিষ্ঠান। ২৩টি টার্মিনালের মাধ্যমে এসব প্রতিষ্ঠান এলপি গ্যাস সারাদেশে সরবরাহ করছে। আর সিলিন্ডারে গ্যাস ভরতে নির্মাণ করা হয়েছে ৪৩টি প্ল্যান্ট।

দেশিয় সব কোম্পানি বলছে, ৭০ শতাংশ গৃহস্থালীতে এলপি গ্যাস সরবরাহে সরকারের যে চ্যালেঞ্জ তা মেটাতে প্রস্তুত আছেন তারা। তবে দরকার এখাতের জন্য স্বতন্ত্র সেল।

এ খাতের বিনিয়োগে সরকারের পদক্ষেপের প্রশংসা ছিলো আন্তর্জাতিক বিভিন্ন কোম্পানির। তাদের মতে, এলপি গ্যাসের চাহিদা পূরণে মানসম্পন্ন সেবা দেয়ার নিশ্চয়তাই পারে প্রতিযোগিতামূলক বাজার তৈরি করতে।

এলপি গ্যাস অপারেটরদের আন্তর্জাতিক সংস্থার পরিচালকের মতে, গত একযুগে এলপি গ্যাসে মানোন্নয়ন এবং চাহিদার দিক থেকে উন্নতি হয়েছে বাংলাদেশের।

দেশে এলপি গ্যাসের নীতিমালা হওয়ায় সাধুবাদ জানিয়ে দাম নির্ধারণ এবং সিলিন্ডার নিরাপত্তা বিষয়ে সরকারকে নজর দেয়ার পরামর্শ বিশেষজ্ঞদের।

একই রকম সংবাদ সমূহ

‘ভোমরা স্থলবন্দরকে পূর্ণাঙ্গ বন্দর করা হবে’ : নৌ-পরিবহন প্রতিমন্ত্রী

সাতক্ষীরা ভোমরা স্থলবন্দর উন্নয়ন ও পরিচালনা গতিশীলতা আনয়নের নিমিত্ত গঠিতবিস্তারিত পড়ুন

টিকাদানের সাফল্যে ‘ভ্যাকসিন হিরো’ পেলেন প্রধানমন্ত্রী

টিকাদানের সাফল্যে ‘ভ্যাকসিন হিরো’ পেলেন প্রধানমন্ত্রী। বাংলাদেশে টিকাদান কর্মসূচি একটিবিস্তারিত পড়ুন

সর্বজনীন স্বাস্থ্য কর্মসূচির অগ্রগতি ত্বরান্বিত করার আহ্বান

জাতিসংঘের ৭৪তম সাধারণ পরিষদের অধিবেশনে যোগ দিতে নিউ ইয়র্কে এসেবিস্তারিত পড়ুন

  • রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসন প্রক্রিয়ায় যুক্ত হচ্ছে চীন
  • ইউপি নির্বাচন : চেয়ারম্যান-মেম্বারদের শিক্ষাগত যোগ্যতার বিষয়টি ‘গুজব’
  • বাংলাদেশের নর্দান ইউনিভার্সিটি ও কানাডার কর্টলার ইন্টারন্যাশন্যাল, রেসিন্ট ইন্টারন্যাশন্যালের মধ্যে সমঝোতা চুক্তি
  • চতুর্থ ড্রিমলাইনার ‘রাজহংস’ উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী
  • প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ৩৭টি পদক লাভ
  • ড. কালাম ‘এক্সিলেন্স এওয়ার্ড’ গ্রহণ করেই দেশবাসীকে উৎসর্গ করলেন প্রধানমন্ত্রী
  • তৃণমূল থেকে সংগঠনকে গড়ে তুলতে হবে: প্রধানমন্ত্রী
  • মোবাইল ছিনতায়কারীকে দৌড়ে ধরলেন ম্যাজিস্ট্রেট
  • কয়েক ঘণ্টার মধ্যে শোভন-রাব্বানির ভাগ্য নির্ধারণ
  • পরিকল্পিতভাবে উন্নয়ন পরিকল্পনা গ্রহণ করতে হবে : প্রধানমন্ত্রী
  • পুলিশের ব্যাংকের যাত্রা শুরু
  • বিএনপি অর্থ-সম্পদ অর্জনে বেশি ব্যস্ত ছিল: প্রধানমন্ত্রী