রবিবার, অক্টোবর ২, ২০২২

কলারোয়া নিউজ

প্রধান ম্যেনু

সাতক্ষীরার সর্বাধুনিক অনলাইন পত্রিকা

নতুন সিইসি নুরুল হুদার নাম প্রস্তাব করেছিল কারা?

রাষ্ট্রপতি গঠিত সার্চ কমিটির কাছে জমা দেওয়া আওয়ামী লীগ ও বিএনপির প্রস্তাবে ছিলো না নতুন প্রধান নির্বাচন কমিশনারের (সিইসি) নাম। তবে রাষ্ট্রপতি সার্চ কমিটির তালিকা থেকে এ পদে নিয়োগ দিয়েছেন সাবেক সচিব কে এম নুরুল হুদাকে।

জানা গেছে, দেশের প্রধান দুই রাজনৈতিক দল নুরুল হুদার নাম প্রস্তাব না করলেও ১৪ দলীয় জোটের শরিক বাংলাদেশ তরিকত ফেডারেশন এবং ন্যাশনাল আওয়ামী পার্টি (ন্যাপ) সিইসি হিসেবে তার নাম প্রস্তাব করে। সার্চ কমিটি, তরিকত ফেডারেশন ও সরকারের প্রভাবশালী একটি গোয়েন্দা সংস্থা সূত্রে এসব তথ্য নিশ্চিত হয়েছে।

সূত্রগুলো জানায়, সার্চ কমিটিকে দেওয়া তরিকত ফেডারেশনের প্রস্তাবে সিইসি হিসেবে নুরুল হুদা এবং কমিশনার হিসেবে সাবেক সচিব মো. রফিকুল ইসলাম, ব্রিগেডিয়ার জেনারেল (অব.) শাহাদাৎ হোসেন চৌধুরী, সাবেক সচিব আলী কবির এবং ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক অধ্যাপক জিনাতের নাম ছিল। যাদের মধ্যে ৩ জনকে নতুন

ইসিতে নিয়োগ দিয়েছেন রাষ্ট্রপতি।

অন্যদিকে ন্যাপও সিইসি হিসেবে নুরুল হুদার নাম প্রস্তাব করে। তবে অন্য রাজনৈতিক দলগুলো তাকে কমিশনার হিসেবে নাম প্রস্তাব করে।

তরিকত ফেডারেশনের নির্ভরযোগ্য দুটি সূত্র জানায়, ‘ক্ষমতাসীন দলের পরামর্শে তিনটি ও নিজেদের দুটি নাম প্রস্তাব করে দলটি। এক্ষেত্রে সার্চ কমিটির বৈঠকেও তার ইঙ্গিত মেলে।’

এ বিষয়ে জানতে তরিকত ফেডারেশনের চেয়ারম্যান সৈয়দ নজিবুল বসর ও মহাসচিব এম এ আউয়ালকে ফোন করা হলে তারা মন্তব্য করতে অস্বীকৃতি জানান। তাদের ভাষ্য, ‘নাম যেখানে জমা দেওয়ার, সেখানে জমা দিয়েছি। নাম প্রকাশ করার কোনও নিয়ম ছিল না, এখনও নেই। রাষ্ট্রপতি ইসি গঠন করেছেন, এ নিয়ে আর কোনও মন্তব্য নেই।’

জানা গেছে, ৩১টি রাজনৈতিক দলের সঙ্গে সংলাপ করলেও নতুন ইসিতে প্রাধান্য পেয়েছে ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ নেতৃত্বাধীন ১৪ দলীয় জোটভুক্ত শরিকদলগুলোর প্রস্তাবিত নাম। তবে কমিশনার হিসেবে বিএনপির প্রস্তাব থেকে একজনকে নেওয়া হয়েছে।

নতুন সিইসি নুরুল হুদার নেতৃত্বে অন্য নির্বাচন কমিশনাররা হলেন- সাবেক সচিব মো. রফিকুল ইসলাম, সাবেক অতিরিক্ত সচিব মাহবুব তালুকদার, সাবেক জেলা ও দায়রা জজ বেগম কবিতা খানম, ব্রিগেডিয়ার জেনারেল (অব.) শাহাদাৎ হোসেন চৌধুরী। রাষ্ট্রপতি মো.আবদুল হামিদ সাংবিধানিক ক্ষমতাবলে তাদের নিয়োগ দিয়েছেন। এদের মধ্যে ব্রিগেডিয়ার জেনারেল (অব.) শাহাদাৎ হোসেন চৌধুরীর নাম আসে ক্ষমতাসীনদের জোটসঙ্গী সাম্যবাদী দলের প্রস্তাবেও। সাবেক জেলা ও দায়রা জজ বেগম কবিতা খানমের নাম দেয় আওয়ামী লীগ। সাবেক অতিরিক্ত সচিব মাহবুব তালুকদারকে প্রস্তাব করে বিএনপি। আলী ইমাম মজুমদারকে প্রধান নির্বাচন কমিশনার হিসেবে প্রস্তাব করেছিল লিবারেল ডেমোক্রেটিক পার্টি।

উল্লেখ্য, আগামী ৮ ফেব্রুয়ারি সিইসি কাজী রকিবউদ্দীন আহমদ ও অন্য তিন কমিশনারের মেয়াদ শেষ হবে। ১৪ ফেব্রুয়ারি শেষ হবে কমিশনার শাহনেওয়াজের মেয়াদ।

একই রকম সংবাদ সমূহ

‘ভোমরা স্থলবন্দরকে পূর্ণাঙ্গ বন্দর করা হবে’ : নৌ-পরিবহন প্রতিমন্ত্রী

সাতক্ষীরা ভোমরা স্থলবন্দর উন্নয়ন ও পরিচালনা গতিশীলতা আনয়নের নিমিত্ত গঠিতবিস্তারিত পড়ুন

টিকাদানের সাফল্যে ‘ভ্যাকসিন হিরো’ পেলেন প্রধানমন্ত্রী

টিকাদানের সাফল্যে ‘ভ্যাকসিন হিরো’ পেলেন প্রধানমন্ত্রী। বাংলাদেশে টিকাদান কর্মসূচি একটিবিস্তারিত পড়ুন

সর্বজনীন স্বাস্থ্য কর্মসূচির অগ্রগতি ত্বরান্বিত করার আহ্বান

জাতিসংঘের ৭৪তম সাধারণ পরিষদের অধিবেশনে যোগ দিতে নিউ ইয়র্কে এসেবিস্তারিত পড়ুন

  • রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসন প্রক্রিয়ায় যুক্ত হচ্ছে চীন
  • ইউপি নির্বাচন : চেয়ারম্যান-মেম্বারদের শিক্ষাগত যোগ্যতার বিষয়টি ‘গুজব’
  • বাংলাদেশের নর্দান ইউনিভার্সিটি ও কানাডার কর্টলার ইন্টারন্যাশন্যাল, রেসিন্ট ইন্টারন্যাশন্যালের মধ্যে সমঝোতা চুক্তি
  • চতুর্থ ড্রিমলাইনার ‘রাজহংস’ উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী
  • প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ৩৭টি পদক লাভ
  • ড. কালাম ‘এক্সিলেন্স এওয়ার্ড’ গ্রহণ করেই দেশবাসীকে উৎসর্গ করলেন প্রধানমন্ত্রী
  • তৃণমূল থেকে সংগঠনকে গড়ে তুলতে হবে: প্রধানমন্ত্রী
  • মোবাইল ছিনতায়কারীকে দৌড়ে ধরলেন ম্যাজিস্ট্রেট
  • কয়েক ঘণ্টার মধ্যে শোভন-রাব্বানির ভাগ্য নির্ধারণ
  • পরিকল্পিতভাবে উন্নয়ন পরিকল্পনা গ্রহণ করতে হবে : প্রধানমন্ত্রী
  • পুলিশের ব্যাংকের যাত্রা শুরু
  • বিএনপি অর্থ-সম্পদ অর্জনে বেশি ব্যস্ত ছিল: প্রধানমন্ত্রী