রবিবার, আগস্ট ১৪, ২০২২

কলারোয়া নিউজ

প্রধান ম্যেনু

সাতক্ষীরার সর্বাধুনিক অনলাইন পত্রিকা

দেশে কোনো কোচিং সেন্টার থাকবে না: দুদক চেয়ারম্যান

বাংলাদেশে সেই দিন আসবে যখন দেশে কোনো কোচিং সেন্টার থাকবে না। শিক্ষকরা গাইড হয়ে গাইড বইয়ের ভূমিকা পালন করবেন। আজ শিক্ষকদের কাছে শিক্ষার্থীদের আমানত রাখছি। শিক্ষার্থীদের স্বশিক্ষায় শিক্ষিত করুন। দেশের চলমান অগ্রযাত্রাকে বেগমান রাখতে শিক্ষকদের ভূমিকা ব্যাপক।

সোমবার সকালে রাজধানীর ওসমানী স্মৃতি মিলনায়তনে সততা সংঘের সমাবেশ ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে সভাপতির বক্তব্যে দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) চেয়ারম্যান ইকবাল মাহমুদ একথা বলেন।

অনুষ্ঠানে শিক্ষার্থীদের দুর্নীতির বিরুদ্ধে শপথ বাক্য পাঠ করান দুদক চেয়ারম্যান ইকবাল মাহমুদ।

দুদক চেয়ারম্যান বলেন, দেশে যারা সন্ত্রাস ও জঙ্গিবাদের মদদ দিচ্ছে তাদের বিরুদ্ধে দুদকের অভিযান অব্যাহত থাকবে। দুর্নীতি নির্মূলে আমাদের যুদ্ধ চলবে। কোনো ব্যক্তি আমাদের কাছে মুখ্য নয়। দুর্নীতি, সন্ত্রাস, জঙ্গিবাদ ও মাদক থেকে শিক্ষার্থীদের মুক্ত রাখতে হবে। আমাদের সময় শেষ হয়ে আসছে। এ দেশকে সুন্দর করে গড়ে তুলতে হবে শিক্ষার্থীদের। তোমরাই দেশের নেতৃত্ব দেবে। শিক্ষার্থীদের জ্ঞান অর্জন করার আহ্বান জানিয়ে ইকবাল মাহমুদ বলেন, জ্ঞান অর্জন করলেই কেবলমাত্র দুর্নীতির বিরুদ্ধে অবস্থান নেওয়া যাবে। যাদের কোনো জ্ঞান নেই তারাই দুর্নীতি, সন্ত্রাস ও জঙ্গিবাদে জড়িয়ে পড়ছে।

সততার চর্চা করতে হবে জানিয়ে দুদক চেয়ারম্যান বলেন, আমাদের ২১ হাজার সততা সংঘ রয়েছে। এবছর আমরা অনেক শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে সততা সংঘ গড়ে তুলতে পারিনি। তাই শিক্ষকদের প্রতি অনুরোধ আপনারা সততা সংঘ গড়ে তুলুন। দুর্নীতি প্রতিরোধে শিক্ষার্থীদের সহায়তা করুন। একজন শিক্ষক পারেন শিক্ষার্থীদের মানুষ হিসেবে গড়ে তুলতে। তবে শিক্ষক যদি শিক্ষার্থীদের প্রকৃত জ্ঞান না দেন তাহলে শিক্ষার্থীরা জ্ঞান অর্জন থেকে পিছিয়ে থাকবে এটাই স্বাভাবিক।

দুদক কমিশনার ড. নাসিরউদ্দিন বলেন, দুর্নীতি প্রতিরোধে ঐক্যবদ্ধ হওয়া ছাড়া দুর্নীতির থাবা থেকে মুক্তি পাওয়া সম্ভব নয়। ২০৩০ সালের মধ্যে এসডিজি অর্জন বা উন্নয়ন করতে হলে এখনি আমাদেরকে দুর্নীতি থেকে বেরিয়ে আসতে হবে। আবার আমাদের খেয়াল রাখতে হবে শিক্ষার্থীরা যেন কোচিং নির্ভর না হয়। কেননা কোচিং নির্ভর জ্ঞান সফলতা থেকে দূরে রাখে। আবার এটাও খেয়াল রাখতে হবে, শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে যেন ভর্তি বাণিজ্য না হয়। সার্বিক বিবেচনায় এসডিজি অর্জনে এখনি আমাদেরকে দুর্নীতির কালো থাবা থেকে মুক্তি পেতে হবে।

একই রকম সংবাদ সমূহ

‘ভোমরা স্থলবন্দরকে পূর্ণাঙ্গ বন্দর করা হবে’ : নৌ-পরিবহন প্রতিমন্ত্রী

সাতক্ষীরা ভোমরা স্থলবন্দর উন্নয়ন ও পরিচালনা গতিশীলতা আনয়নের নিমিত্ত গঠিতবিস্তারিত পড়ুন

টিকাদানের সাফল্যে ‘ভ্যাকসিন হিরো’ পেলেন প্রধানমন্ত্রী

টিকাদানের সাফল্যে ‘ভ্যাকসিন হিরো’ পেলেন প্রধানমন্ত্রী। বাংলাদেশে টিকাদান কর্মসূচি একটিবিস্তারিত পড়ুন

সর্বজনীন স্বাস্থ্য কর্মসূচির অগ্রগতি ত্বরান্বিত করার আহ্বান

জাতিসংঘের ৭৪তম সাধারণ পরিষদের অধিবেশনে যোগ দিতে নিউ ইয়র্কে এসেবিস্তারিত পড়ুন

  • রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসন প্রক্রিয়ায় যুক্ত হচ্ছে চীন
  • ইউপি নির্বাচন : চেয়ারম্যান-মেম্বারদের শিক্ষাগত যোগ্যতার বিষয়টি ‘গুজব’
  • বাংলাদেশের নর্দান ইউনিভার্সিটি ও কানাডার কর্টলার ইন্টারন্যাশন্যাল, রেসিন্ট ইন্টারন্যাশন্যালের মধ্যে সমঝোতা চুক্তি
  • চতুর্থ ড্রিমলাইনার ‘রাজহংস’ উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী
  • প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ৩৭টি পদক লাভ
  • ড. কালাম ‘এক্সিলেন্স এওয়ার্ড’ গ্রহণ করেই দেশবাসীকে উৎসর্গ করলেন প্রধানমন্ত্রী
  • তৃণমূল থেকে সংগঠনকে গড়ে তুলতে হবে: প্রধানমন্ত্রী
  • মোবাইল ছিনতায়কারীকে দৌড়ে ধরলেন ম্যাজিস্ট্রেট
  • কয়েক ঘণ্টার মধ্যে শোভন-রাব্বানির ভাগ্য নির্ধারণ
  • পরিকল্পিতভাবে উন্নয়ন পরিকল্পনা গ্রহণ করতে হবে : প্রধানমন্ত্রী
  • পুলিশের ব্যাংকের যাত্রা শুরু
  • বিএনপি অর্থ-সম্পদ অর্জনে বেশি ব্যস্ত ছিল: প্রধানমন্ত্রী