মঙ্গলবার, ডিসেম্বর ৬, ২০২২

কলারোয়া নিউজ

প্রধান ম্যেনু

সাতক্ষীরার সর্বাধুনিক অনলাইন পত্রিকা

হৃদরোগের ঝুঁকি কমাতে ঘরোয়া ওষুধ

হৃদরোগের আগাম লক্ষণগুলো জেনে নিন

স্বাস্থ্যগত কোনো গোলযোগ দেখা গেলেই আমাদের শরীর নানাভাবে সে ব্যাপারে আমাদের সচেতন করার চেষ্টা চালিয়ে যায়। তেমনি হৃৎপিণ্ড ঠিকমতো কাজ না করলেও নানা লক্ষণ দেখা দেয়। কী সেই সব লক্ষণ?
চলুন জেনে নেওয়া যাক :

১. গোড়ালি ফুলতে শুরু করবে
হার্ট ঠিকমতো কাজ না করলেই শরীরে পানি জমবে। বিশেষত পায়ের গোড়ালিতে। ফলে শরীরের এই অংশটা ফুলতে শুরু করবে। এই অবস্থাকে চিকিৎসাবিজ্ঞানের পরিভাষায় ইডিমা বলা হয়ে থাকে।

২. মাথা যন্ত্রণা
যদি দেখেন টানা ২ মাস ধরে মাথা যন্ত্রণা হচ্ছে, তাহলে সময় নষ্ট না করে চিকিৎসকের পরামর্শ নেবেন। কারণ অনেক সময় হার্টের রোগের লক্ষণ হিসেবেই এমন সমস্যা দেখা যেতে পারে।

৩. ক্লান্তি
হার্ট ঠিকমতো কাজ করতে না পারলে অনেক সময়ই ক্লান্তি বোধ খুব বেড়ে যায়। তাই যদি দেখেন বেশ কয়েক দিন ধরেই কাজ করার ইচ্ছা একেবারে চলে গেছে, সেই সঙ্গে সব সময়ই শুয়ে থাকতে ইচ্ছা করছে, তাহলে তৎক্ষণাৎ চিকিৎসকের পরামর্শ নেবেন। আসলে হার্ট ঠিকমতো কাজ না করলে শরীরে অক্সিজেনসমৃদ্ধ রক্তর অভাব দেখা দেয়। ফলে একাধিক অঙ্গ-প্রত্যঙ্গ কাজ করা বন্ধ করে দেয়। যে কারণে ক্লান্তি বোধ খুব বেড়ে যায়।

৪. তলপেটে যন্ত্রণা
হার্টের অবস্থা ভালো না হলে অনেক সময়ই তলপেটে ক্র্যাম্প বা যন্ত্রণা হওয়ার মতো লক্ষণের বহিঃপ্রকাশ ঘটে থাকে। তাই যদি দেখেন মাঝে মধ্যেই এমন সমস্যা হচ্ছে, একেবারেই হালকা ভাবে নেবেন না।

৫. পিঠের ওপরের দিকে ব্যথা
যেমনটা আগেও বলেছি যে হার্ট যখন ঠিকমতো নিজেকে পাম্প করতে পারে না, তখন শরীরে অক্সিজেনসমৃদ্ধ রক্তের অভাব দেখা দেয়। আর এমনটা হলেই যে যে লক্ষণ দেখা দেয়, তার মধ্যে অন্যতম হলো, পিঠের উপরিঅংশে ব্যথা বা স্টিফনেস। তাই যদি দেখেন দীর্ঘদিন ধরে এমন সমস্যা হচ্ছে, সময় নষ্ট না করে চিকিৎসকের পরামর্শ নেবেন।

৬. কাশি
রেসপিরেটরি ইনফেকশন হয়নি, তাও রাত্রি-দিন কাশি হয়ে চলেছে! সাবধান হন এখন থেকেই। কারণ হার্টের স্বাস্থ্য খারাপ হতে শুরু করলেই সাধারণত এমনটা হয়ে থাকে।

৭. খিদে কমে যাওয়া
হার্ট যে দুর্বল হয়ে পরছে, তা বোঝার প্রথম উপায় হলো, খেয়াল রাখুন খিদে আগের মতো আছে কিনা। যদি দেখেন খাওয়ার ইচ্ছা একেবারেই চলে গেছে, সেই সঙ্গে মাথা ঘোরার মতো লক্ষণ দেখা দিচ্ছে। তাহলে এক্ষুনি সাবধান হন। না হলে কিন্তু বিপদ!
সূত্র : ফক্স নিউজ

হৃদরোগের ঝুঁকি কমাতে ঘরোয়া ওষুধ

শরীরে ট্রাইগ্লিসারাইডের মাত্রা বৃদ্ধি পেলে হৃদপিণ্ডে রক্ত সরবারহকারি ধমনী বা শিরা-উপশিরাগুলিতে ময়লা জমতে শুরু করে। ফলে পর্যাপ্ত পরিমাণে রক্ত হৃদপিণ্ডে পৌঁছাতে পারে না। আর এমনটা যদি দীর্ঘদিন ধরে চলতে থাকে, তাহলে হার্ট অ্যাটাকের আশঙ্কা বহুগুণে বেড়ে যায়। তাই শরীরে যাতে ট্রাইগ্লিসারাইড এবং বাজে কোলেস্টেরল বেশি করে জমার সুযোগ না পায়, সেদিকে নজর রাখাটা আমাদের একান্ত প্রয়োজন।
অনেকক্ষেত্রেই শরীরে বাজে কোলেস্টরলের মাত্রা বৃদ্ধি পেলে কোনও লক্ষণের বহিঃপ্রকাশ ঘটে না। ফলে হার্ট যে খারাপ অবস্থায় রয়েছে, তা বুঝতেই পারা যায় না। সেই কারণেই তো নির্দিষ্ট সময় অন্তর অন্তর রক্ত পরীক্ষার মাধ্যমে দেখে নেওয়া উচিত যে শরীরে কোলেস্টেরলের মাত্রা আদৌ স্বাভাবিক রয়েছে কিনা।

এখন প্রশ্ন হল, ধমনীতে যাতে বেশি মাত্রায় কোলেস্টেরল বা ময়লা জমতে না পারে, তার জন্য কি কোনও উপায় আছে? অবশ্যই আছে! এই লেখায় এমন একটি ঘরোয়া ওষুধ সম্পর্কে আলোচনা করা হল, যা নিয়মিত খেলে আর্টারির ব্লকেজ হওয়ার সম্ভবনা প্রায় থাকে না বললেই চলে, ফলে হার্ট অ্যাটাকের আশঙ্কাও কমে।

উপকরণ
১. আদা- ১টা ছোট ঠুকরো
২. রসুন- ২ চামচ (ভাল করে পিষে নেওয়া)
৩. লেবুর রস- ২ চামচ
৪. মধু- ১ চামচ

ওষুধটি বানানোর পদ্ধতি
ব্লেন্ডারে সব উপকরণগুলি দিয়ে ভাল করে মিশিয়ে নিন।

কখন খেতে হবে ওষুধটি?
প্রতিদিন সকালে খাবেন এই ঘরোয়া ওষুধটি। তবে টানা ২ সপ্তাহ খাওয়ার পর, পরের সাতদিন আর খাবেন না। তারপর পুনরায় খাওয়া শুরু করবেন এই ওষুধটি।

আদা কীভাবে সাহায্য করে?
এতে রয়েছে প্রচুর মাত্রায় অ্যান্টি-অক্সিডেন্ট, যা ধমনীতে জমে থাকা কোলেস্টেরলকে পরিষ্কার করে দেয়। সেই সঙ্গে সেল ড্যামেজও আটকায়।

আদা কীভাবে কাজ করে?
আর্টারিতে যাতে বেশি মাত্রায় ময়লা জমতে না পারে সেদিকেও খেয়াল রাখে আদা। ফলে হার্টে পর্যাপ্ত পরিমাণ রক্ত পৌঁছাতে কোনো অসুবিধাই হয় না।

রসুন কীভাবে সাহায্য করে?
প্রতিদিন যদি রসুন খাওয়া যায়, তাহলে শরীরে কোলেস্টেরল এবং ট্রাইগ্লিসারাইডের মাত্রা একেবারে স্বাভাবিক থাকে। আসলে রসুনে উপস্থিত অ্যালিসিন নামে একটি উপাদন খারাপ কোলেস্টরলের সঙ্গে লড়াই চালিয়ে তাদের ক্ষতি করার ক্ষমতাকে কমিয়ে দেয়। ফলে ধমনীতে ব্লক হওয়ার কোনো সম্ভাবনাই থাকে না।

রসুন ঠিক কী কাজ করে?
অ্যান্টিসেপটিক উপাদান থাকায় রসুন শরীরে উপস্থিত নানা ক্ষতিকর উপদানকে শরীর থেকে বের করে দেয়। এক কথায় শরীরের অন্দরকে পরিষ্কার রাখতে এটি সাহায্য করে। তাই তো রসুনকে শরীরের সবথেকে ভাল বন্ধু হিসেবে বিবেচিত করে থাকেন চিকিৎসকেরা।
লেবু
এতে রয়েছে, ভিটামিন সি, ফাইবার এবং ফ্লায়বোনয়েড। এই উপাদানগুলি শরীরে কোলেস্টরল লেভেল স্বাভাবিক রাখতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে থাকে।

একই রকম সংবাদ সমূহ

এবার বাংলাদেশেও ভাঙল প্রচলিত নিয়ম, যাত্রী নিয়ে বিয়ে করতে বরের বাড়িতে কনে!

এবার বাংলাদেশেও ভাঙল প্রচলিত নিয়ম, যাত্রী নিয়ে বিয়ে করতে বরেরবিস্তারিত পড়ুন

কলারোয়ায় উপজেলা পর্যায়ে সাংবাদিকদের সাথে পুষ্টি বিষয়ে গোলটেবিল বৈঠক

কলারোয়ায় উপজেলা পর্যায়ে সাংবাদিকদের সাথে পুষ্টি বিষয়ে গোলটেবিল বৈঠক অনুষ্ঠিতবিস্তারিত পড়ুন

ভালোবাসার সুড়ঙ্গ রহস্য (ভিডিও)

প্রকৃতি অপার রহস্যের ভান্ডার। তাই সে মাঝে মাঝেই আমাদের চমকেবিস্তারিত পড়ুন

  • কিডনি রোগ প্রতিরোধ ও প্রতিকারের উপায়
  • ঝুঁকি নিয়ে ছবি তুলে আলোচনায় দম্পতি
  • এক বছর পরও নড়াচড়া করে মৃতদেহ!
  • সেলফি তোলায় ছড়াচ্ছে উকুন!
  • আলসেমি দূর করার উপায়
  • রক্তে কোলেস্টেরলের মাত্রা কমাতে উপকারী আমড়া
  • সেলফির কারণে দ্রুত ছড়াচ্ছে উকুন!
  • হৃদরোগ প্রতিরোধের সহজ মন্ত্র
  • কাশ্মীরের একটি গ্রামের নাম ‘বাংলাদেশ’
  • ফেসবুকে নতুন ফিচার চালু, ডিলিট হবে সবকিছু
  • ব্যবহারকারীদের নিরাপত্তায় ফেসবুকে নতুন ফিচার
  • সৌরশক্তিতেই চলবে শাওমি